মুশফিক ও মিঠুনের ইনজুরিতে স্কোয়াডে মমিনুল"

"মুশফিক ও মিঠুনের ইনজুরিতে স্কোয়াডে মমিনুল"


২০ শে ফেব্রুয়ারী তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে ম্যাচে ডানেডিনে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ ও নিউজিল্যান্ড। কিন্তু এই ম্যাচে শুরু হওয়ার আগে বড় ধাক্কা খেল বাংলাদেশ। মিডল অর্ডারের দুই ভরসার প্রতিক মুশফিক ও মিথুন কে পাওয়া যাবে কি না এটা নিয়ে হচ্ছে সংশয়। দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ব্যাটিংয়ের সময় হ্যামস্ট্রিংয়ে চোট পেয়েছেন মিথুন। প্রথম দুই ম্যাচে রান যা করার তিনিই করছেন। সিরিজে বাংলাদেশ দুইটা ফিফটি পেয়েছে। দুইটায় মিঠুন করেছেন। সেই মিঠুনকে হারিয়ে ফেলাটাই যথেষ্ট বড় ক্ষতি হয়েছে। টিম সূত্রে জানা গেছে আজ অনুশীলনে নামেনি মিঠুন। সামনের ম্যাচে মিঠুনকে পাওয়া যাচ্ছে না নিশ্চিত। ফিজিও বলছে সাত দিনের জন্য মাঠের বাইরে থাকতে হবে মিঠুনকে।

মুশফিক দ্বিতীয় ম্যাচের সময় পাঁজরের একপাশে ব্যাথা অনুভব করেছেন। গতকাল যখন মুশফিকের সাথে কথা হয় তার কাছে থেকে চোটের কোনো আভাসও পায়নি। বরং তিনি আরো বললেন যে প্রথম দুই ম্যাচের ব্যর্থতা ভুলে তৃতীয় ম্যাচে পুষিয়ে দেওয়ার প্রতিজ্ঞা শুনছি তার মুখে। কিন্তু আজ সকালে যখন প্রাকটিসে গিয়ে আবার ও ব্যাথা অনুভব করলে ব্যাপারটা সিরায়সলি নিয়েছেন টিম ম্যানেজমেন্ট। আগামীকাল মুশফিকের স্ক্যান করানো হবে। তারপর সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে তাকে পাওয়া যাচ্ছে কি না।

মুশফিকের স্ক্যানে যদি বড় কিছু ধরা পড়ে তাহলে কি হবে? একাদশ সাজানোই তো মুশকিল হয়ে পড়বে। শেষ মূহুর্তে দলের বড় ভরসা সাকিব ছিটকে পড়ায় দল হয়ে যায় ১৪ জনের। প্রথম দুই ম্যাচে বাইরে থাকা তিনজন ই বোলার। মিঠুনের ব্যাপআপ তো কাউকে নেওয়া হয়নি আর মুশফিক না থাকলে তো একাদশ সাজানো যায়না। তাই জরুরী ভিত্তিতে কাল ক্রাইষ্টচার্চ থেকে উড়িয়ে আনা হয়েছে মুমিনুলকে।

মিঠুনের খেলতে না পারাটা নিশ্চিত। মুশফিকুর রহিম খেলবেন বলেই আশা করছে বাংলাদেশ দল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত মুশফিককে ও যদি না পাওয়া যায় তাহলে মুমিনুল আরও একটা সুযোগ পাচ্ছেন।

No comments

Powered by Blogger.