১ম ওয়ানডেতে শ্রীলঙ্কাকে ৮ উইকেটে হারালো দক্ষিন আফ্রিকা।

১ম ওয়ানডেতে শ্রীলঙ্কাকে ৮ উইকেটে হারালো দক্ষিন আফ্রিকা।







প্রথম ওয়ানডেতে ৮ উইকেটে জিতে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে এগিয়ে গেছে দু প্লেসির দল। ২৩২ রানের লক্ষ্য ৬৭ বল বাকি থাকতে ছুঁয়ে ফেলে স্বাগতিকরা।
৩২ রানে থিসারা পেরেরার বলে লাকশান সান্দক্যানকে সহজ ক্যাচ দিয়েও বেঁচে যান দু প্লেসি। এরপর আর পেছনে তাকাতে হয়নি তাকে। টেস্ট সিরিজে হোয়াইটওয়াশড হয়ে যাওয়া দলকে ওয়ানডেতে দাপুটে এক জয় এনে দেন অধিনায়ক।
দ্য ওয়ান্ডারার্স স্টেডিয়ামে রোববার টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি শ্রীলঙ্কার। চোট কাটিয়ে দলে ফেরা লুঙ্গি এনগিডি দ্রুত ফিরিয়ে দেন দুই ওপেনার নিরোশান ডিকভেলা ও উপুল থারাঙ্গাকে।
তৃতীয় উইকেটে কুসল পেরেরার সঙ্গে ৭৩ রানের জুটিতে প্রতিরোধ গড়েন ওশাদা ফার্নান্দো। ৩৬ বলে ৩৩ রান করা কুসল পেরেরাকে কট বিহাইন্ড করে জুটি ভাঙেন তাহির। অভিষেকে ফিফটির আশা জাগানো ওশাদা ৪৯ বলে ৪৯ রান করে ফিরে যান রান আউট হয়ে।
ধনাঞ্জয়া ডি সিলভার সঙ্গে ৯৪ রানের জুটিতে দলকে ৪ উইকেটে ১৯৫ রানের দৃঢ় ভিতের ওপর দাঁড় করান কুসল মেন্ডিস। তিন চারে ৩৯ রান করা ডি সিলভাকে ফিরিয়ে বিপজ্জনক হয়ে উঠা জুটি ভাঙেন তাহির। এই লেগ স্পিনার খানিক পর বিদায় করেন পাঁচ চার ও এক ছক্কায় ৬০ রান করা মেন্ডিসকে।
মেন্ডিসের বিদায়ের পর বেশিদূর এগোয়নি শ্রীলঙ্কার ইনিংস। এক সময় তিনশ রানের কাছাকাছি যাওয়ার আশা জাগানো সফরকারীরা থেমে যায় আড়াইশর আগেই। দলটি শেষ পাঁচ উইকেট হারায় ২১ রানে।  
আঁটসাঁট বোলিংয়ে তাহির ৩ উইকেট নেন ২৬ রানে। পেসার এনগিডি ৬০ রানে নেন ৩ উইকেট।
রান তাড়ায় শুরুতেই রিজা হেনড্রিকসকে হারায় দক্ষিণ আফিকা। দ্বিতীয় উইকেটে কুইন্টন ডি ককের সঙ্গে ১৩৬ রানের জুটিতে দলকে ভালো অবস্থানে নিয়ে যান দু প্লেসি। এই জুটিতে অগ্রণী ছিলেন কিপার-ব্যাটসম্যান ডি কক। দ্রুত রান তোলা বাঁহাতি এই ওপেনার ৭২ বলে ১১ চারে করেন ৮১ রান।
প্রায় এক ছন্দে খেলে যাওয়া দু প্লেসি পঞ্চাশ স্পর্শ করেন ৫১ বলে, ক্যারিয়ারের একাদশ সেঞ্চুরিতে যান ১০৪ বলে। দ্বিতীয় উইকেটে রাসি ফন ডার ডুসেনের সঙ্গে ৮২ রানের জুটিতে দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন অধিনায়ক। ম্যাচ সেরার পুরস্কার জেতা দু প্লেসি ১১৪ বলে ১৫ চার ও এক ছক্কায় করেন ১১২ রানে। ফন ডার ডুসেন অপরাজিত থাকেন ৩২ রানে। 
আগামী বুধবার সেঞ্চুরিয়নে হবে দ্বিতীয় ওয়ানডে।
সংক্ষিপ্ত স্কোর:
শ্রীলঙ্কা: ৪৭ ওভারে ২৩১ (ডিকভেলা ৮, থারাঙ্গা ৯, কুসল পেরেরা ৩৩, ওশাদা ৪৯, মেন্ডিস ৬০, ডি সিলভা ৩৯, থিসারা ৭, দনাঞ্জয়া ০, মালিঙ্গা ১৫, সান্দাক্যান ৩, বিশ্ব ১*; রাবাদা ১/৪৮, এনগিডি ৩৬০, নরটিয়া ১/৩৩, প্রিটোরিয়াস ০/৪৪, তাহির ৩/২৬, মুল্ডার ০/২০)
দক্ষিণ আফ্রিকা: ৩৮.৫ ওভারে ২৩২/২ (ডি কক ৮১, হেনড্রিকস ১, দু প্লেসি ১১২*, ফন ডার ডুসান ৩২*; মালিঙ্গা ০/৩৭, বিশ্ব ১/৪৩, দনাঞ্জয়া ১/৫২, থিসারা ০/২২, ডি সিলভা ০/২১, সান্দাক্যান ০/৫৬)
ফল: দক্ষিণ আফ্রিকা ৮ উইকেটে জয়ী
ম্যান অব দা ম্যাচ: ফাফ দু প্লেসি

No comments

Powered by Blogger.