বিদেশের মাটিতে বেশি উজ্জ্বল সৌম্য সরকার

দুই বছর আগে নিউজিল্যান্ড সফরে গিয়েছিল বাংলাদেশ। সৌম্য সরকারের তখন খারাপ সময় চলছে।
ছবিঃ এফএফপি 


দেশের উইকেটে একের পর এক ম্যাচ ব্যর্থ হচ্ছেন। বাদ
পড়েছেন টেস্ট দল থেকে। নিউজিল্যান্ডে ওই সফরে
ইমরুল কায়েস চোট পাওয়ায় আবারও সুযোগ হয়।
ক্রাইস্টচার্চে খেলেন ৮৬ রানের চোখ জুড়ানো ইনিংস।
এটাই এতদিন তার ক্যারিয়ারসেরা ছিল। আজ ছাড়িয়ে গেলেননি জেকে। হাঁকালেন ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি।
সৌম্য সরকার যেদিন নিজের মেজাজে থাকেন, সেদিন
দর্শকদের পাশাপাশি ক্রিকেট বলটাও যেন সম্মোহিত হয়ে তারক থা শুনে। আজ তার চোখ ধাঁধানো সাবলীল ব্যাটিং দেখেম নে হচ্ছিল হয়তো তিন সুপারস্টার সাকিব-তামিম-মুশফিকেরম তো ডাবল হাঁকিয়ে ফেলবেন।

তবে তিনি থামলেন ১৪৯ রানে। ট্রেন্ট বোল্টের একটি সুইং
বলে দ্বিধাগ্রস্ত হয়ে পড়ায় শেষ হয় ১৭১ বলে ১৪৯ রানের
আনন্দদায়ী ইনিংস। এর আগেই তিনি দ্রুততম সেঞ্চুরিতে তামিমই কবালের পাশে বসেছেন।

এই সৌম্যকেই বলা হয় তামিম ইকবালের যোগ্য উত্তরসূরি। আবারচ রম ধারাবাহিকতার অভাব তার মাঝে। যে কারণে প্রশংসার চেয়েস মালোচনাই বেশি হয় তার। তামিম ইকবালের ক্যারিয়ারের শুরুরদি কটাও এরকম ছিল। আজ তিনি তিন ফরম্যাটেই দেশের সেরাব্যা টসম্যান; বিশ্বের অন্যতম সেরা ওপেনার। আজে যেদ্বি ধাটুকুর জন্য অমন দারুণ ইনিংস শেষ হলো সৌম্যর, সেই দ্বিধা
দূর করতে হবে তাকে।

 আজ যেভাবে পরিকল্পনা করে
খেলেছেন, সেই খেলাটাই তার কাছে আশা করে দল।
মজার ব্যাপার হলো, বিদেশের মাটিতে বাংলাদেশের
ব্যাটসম্যানরা খাবি খেলেও সৌম্য সরকার এর বিপরীত। সাদাপো শাকে দেশের মাটিতে ১২ ইনিংসে যেখানে তার গড়
১৬.৮৩, সর্বোচ্চ ৩৭। সেখানে দেশের বাইরে ১২ ইনিংসে
গড় ৪৪.৬৬।

সেঞ্চুরি ১টি, ফিফটি ৪টি! বাংলাদেশের প্রথাগত ঘূর্ণি
উইকেটে একজন ব্যাটসম্যানের ফর্মে ফেরা সত্যিই কঠিন।
একই কারণে বিদেশের মাটিতে শর্ট বলে খাবি খায় টাইগাররা।

আমাদের দেশের উইকেটে রান তোলাই কঠিন। ব্যাটিং স্বর্গ
কী জিনিস- দেশের বাইরে না গেলে এর খোঁজই পায় না
ক্রিকেটাররা। ফর্মে ফিরবে কী করে?
সামনেই আসছে বিশ্বকাপ। এর আগে আয়ারল্যান্ডে
আরেকটি ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। চলতি
সিরিজে বাকী আরও দুটি টেস্ট। বিভিন্ন সূত্রে পাওয়া খবরে
আশা করা যাচ্ছে, ওয়েলিংটন এবং ক্রাইস্টচার্চেও উইকেট
হবে ব্যাটিং স্বর্গ।

বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানদের জন্য কিন্তু দারুণ
সুযোগ অপেক্ষা করছে নিজেদের ঝালিয়ে নেওয়ার।
সুযোগ আছে বিশ্বকাপ দলে জায়গা পাকা করার।

No comments

Powered by Blogger.