রাহুলের দুরন্ত ইনিংসে মুম্বই ‘বধ’ পঞ্জাবের

ipl cn24
 বিপক্ষ শিবিরের ব্যাটিং লাইন আপে যেখানে গেইল, রাহুলের মতো টি-টোয়েন্টি স্পেশালিস্টদের নাম, সেখানে ১৭৭ রান টার্গেট কখনই নিরাপদ নয়৷ তাও শেষ পর্যন্ত একটা চেষ্টা চালিয়েছিল মুম্বই ইন্ডিয়ান্স৷ গেইলের ৪০, মায়াঙ্কের ৪৩ আর লোকেশ রাহুলের অপরাজিত ৭১ রানের দুরন্ত ইনিংস মুম্বইয়ের সেই চেষ্টায় জল ঢেলে দেয়৷  ১৭৭ রান তাড়া করতে নেমে ৮ বল বাকি থাকতে ৮ উইকেটে ম্যাচ জিতে নিল প্রীতির পঞ্জাব৷ 
  READ MORE
ম্যাচ জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন লোকেশ রাহুল৷ লিগে তিন ম্যাচে এটি পঞ্জাবের দ্বিতীয় জয়৷ অন্যদিকে সংসমখ্যাক ম্যাচ খেলে দুই ম্যাচে হার মুম্বইয়ের৷
মোহালিতে এদিন টস জিতে রোহিতদের ব্যাট করতে পাঠান অশ্বিনরা৷ কিংস ইলেভেন পঞ্জাবের ডেরায় শুরুটা মন্দ হয়নি মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের৷ কিন্তু দ্রুত কয়েকটি উইকেট হারানোয় বড় রানে পৌঁছতে পারেনি তিনবারের  আইপিএল চ্যাম্পিয়ন দল৷ রোহিত শর্মা ও কুইন্টন ডি’ কক ওপেনিং জুটি মাত্র ৫.২ ওভারে ৫১ রান যোগ করে৷  ১৮ বলে ৩২ রানে ডাগ-আউটে ফেরেন মুম্বই ইন্ডিয়ান্স অধিনায়ক রোহিত৷
রোহিতের পর দ্রুত সূর্যকুমারকে ডাগ-আউটে ফেরত পাঠান কিংস ইলেভেন বোলাররা৷ তবে ডি’ কক ও যুবরাজ সিং ১১তম ওভারেই মুম্বইয়কে একশো রানে পৌঁছে দেন৷ কিন্তু মহম্মদ শামি ছন্দ থাকা ডি’ কককে আউট করার পর ছন্দ হারায় মুম্বই৷ ৩৯ বলে দুই ছক্কা ও হাফ-ডজন বাউন্ডারির সাহায্যে ৬০ রানের গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেলেন ডি’ কক৷


যুবরাজ সিং শুরুটা ভালো করেও ২২ বলে ১৮ রান করে ডাগ-আউটে ফেরেন৷ এর পর কাইরন পোলার্ড ও ক্রুনাল পান্ডিয়া দ্রুত আউট হওয়ার দু’শোর স্বপ্ন দেখা শেষ হয়ে যায় মুম্বইয়ের৷ তবে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ম্যচের মতো হার্দিক পান্ডিয়ার ঝোড়ো ইনিংস মুম্বইয়ে ১৭৬ রানে পৌঁছে দেয়৷ ১৯ বলে ৩১ রান করে আউট হন হার্দিক৷ আগের ম্যাচেও ৩২ রানের ক্যামিও ইনিংস খেলে মুম্বইকে বড় রানে পৌঁছে দিয়েছিলেন তিনি৷
জবাবে পঞ্জাবের হয়ে গেইল-রাহুলের ওপেনিং জুটিতে ওঠে ৫৩ রান৷ ৩টি বাউন্ডারির ও ৪টি ওভার বাউন্ডারির সাহায্যেকে ২৪ বলে ৪০ রানে ঝড়ো ইনিংস গেইলের৷ ধৈর্য্য ধরলে এদিন অর্ধশতরান পাকা ছিল গেইলে৷ ক্রুণালের বলে হার্দিকের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন গেইল৷ তিন নম্বরে মায়াঙ্ক আগারওয়াল ২টি ছয় ও ৪টি চারের সাহায্যে ৪৩ রানের দামি ইনিংস উপহার দেন৷ পঞ্জাবের হয়ে ওপেনিংয়ে নেমে ম্যাচ জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন রাহুল৷ তাঁর অপরাজিতে ৭১ রানের ম্যাচ জেতানো ইনিংস সাজানো ৬টি চার ও ১টি ছয় দিয়ে৷ ম্যাচের সেরাও হয়েছেন রাহুল৷

No comments

Powered by Blogger.