Kohli tweets about Bangladesh team

FArHaDuL IsLaM RaKiB
ক্রাইস্টচার্চে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলায় হতাহতের সংখ্যা পঞ্চাশ ছাড়িয়েছে। যে মসজিদে হামলা হয়েছিলে, সেখানেই জুমার নামাজ পড়তে গিয়েছিলেন বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। একটু এদিক-ওদিক হলেই ক্রিকেট ইতিহাসের ভয়ংকরতম একটি দিনে রূপ নিত ১৫ ই মার্চ। ২০১৮ সালে বিশ্বের শান্তিপূর্ণ রাষ্ট্রের তালিকায় দুইয়ে ছিল নিউজিল্যান্ড। সেখানেই আজ ঘটে গেলে ভয়ংকর এক ঘটনা। ক্রাইস্টচার্চে দুটি মসজিদে মুসলিমদের ওপর হামলায় হতাহত মানুষের সংখ্যা ৫০ ছাড়িয়ে গেছে। এরই মধ্যে এ হামলার নিন্দা করে সন্ত্রাসী হামলা বলে স্বীকৃতি দিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ান প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন। হামলাকারীদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে চলছে নিন্দার ঝড়। সে তালিকায় নাম লিখিয়েছেন সাবেক ও বর্তমান অনেক ক্রিকেটার। বিরাট কোহলিও এ হামলার নিন্দা প্রকাশ করেছেন। শুক্রবার জুমার নামাজ আদায় করতে যে মসজিদে যাচ্ছিলেন তামিম-মুশফিকরা, হামলার শিকার হওয়া মসজিদগুলোর একটি সেটি। তাঁরা পৌঁছানোর আগেই সন্ত্রাসী হামলা হয়ে যাওয়ায় বেঁচে যায় বাংলাদেশ দল। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে এ নিয়ে কিছুক্ষণ আগে একটা বার্তা দিয়েছেন কোহলি, ‘হতবাক করে দেওয়ার মতো শোকাবহ ঘটনা। ক্রাইস্টচার্চে এমন কাপুরুষোচিত হামলায় হতাহত লোকজনের জন্য আমার অনেক ভালোবাসা। বাংলাদেশ দলের জন্য আমার শুভকামনা, নিরাপদে থাকুন। আর নতুন নতুন শিক্ষানীয় পোস্ট পেতে আমাদের নতুন সাইটে ভিজিট করুন www.onlineedu24.com

1 comment:

Powered by Blogger.