শুভ পরিণয়: ইবনে জায়েদ



শুভ পরিণয়

ইবনে জায়েদ




--আরে কি জোস দেখতে রে! ক্যাম্পাসে নতুন লাগছে, ফার্স্ট ইয়ার মনে হয়
-- যা বলেছিস, পুরো আগুন সুন্দরী

ক্যাম্পাসে ঢুকেই এমন কথা শুনতে হবে ভাবেনি রিয়া কথাগুলো শুনে আর মাথা ঠান্ডা রাখতে পারে না

-- আপনাদের প্রবলেম কি ক্যাম্পাসে মেয়েদের টোন কাটতে আসেন লজ্জা করে না?


-- কিন্তু আমি তো...
-- এতকিছুর পরও সাফাই গাইতে লজ্জা করছে না? ছিঃ!" বলে মুখ ঘুরিয়ে চলে যায় রিয়া কোন কথা না শুনেই

আজ ভার্সিটিতে প্রথম দিন রিয়ার পারিবারিক কিছু সমস্যার জন্য বেশ কিছুদিন পর ক্লাস করতে ক্যাম্পাসে এসেছে আজ



প্রথম কয়েকদিন সমস্ত নোট্স জোগাড় করে পিছিয়ে যাওয়া পড়া এগোনোর চেষ্টা করে রিয়া কিন্তু গাইডেন্স ছাড়া তার পক্ষে পড়া বোঝা অসম্ভব হয়ে উঠেছিল আগের ক্লাসগুলো মিস করায় তার জন্য প্রেসেন্ট ক্লাসগুলাও বোঝাও সম্ভব হচ্ছিল না রিয়া টিচারদের সাহায্য নিতে শুরু করে এগোনোর জন্য

এমন করেই কেটে যায় একমাস ক্যাম্পাসের প্রথম দিনের ঘটনাটা আবছা হয়ে আসে রিয়ার মনে একদিন ইকোনমিক্স প্রফেসর অনুপস্থিত থাকায় সমস্যায় পড়ে যায় সে মিনিম্যাক্স থিয়োরি কিছুতেই বুঝে উঠতে পারছিল না কিন্তু প্রফেসরের অপেক্ষা করলে তার পড়া আরো পিছিয়ে যাবে রিয়া একবার শুনেছিল তাদের কলেজের থার্ড ইয়ারের টপার সামী খুব ভালো ইকোনমিক্স বোঝায় তার কাছে সাহায্য চাইলে পিছপা হয় না রিয়া ঠিক করে তার কাছেই যাবে সামীকে খুঁজতে অসুবিধা হয় না রিয়ার সামী প্রায় সময় লাইব্রেরীতেই থাকে

-- আপনি কি সামী?
গলাটা শুনে ঘুরে তাকায় সামী

-- হ্যাঁ, বলুন
-- আপনি সামী?



হতবাক হয়ে যায় রিয়া সঙ্গে রাগটাও চড়তে থাকে আসলে ইনি সেই যে রিয়াকে টোন করেছিল সামীও চিনতে পারে রিয়াকে কিন্তু রিয়া ইতিমধ্যেই ঘুরে চলে যেতে উদ্যত হয়

-- শুনুন ম্যাডাম, আপনি ভুল বুঝেছেন আমায় ফার্স্ট ইমপ্রেশন ইস্ অলোয়েস নট দা লাস্ট ইমপ্রেশন
এটুকু শুনেই দাঁড়িয়ে গেল রিয়া

-- ভুল বুঝেছি? তাহলে ঠিকটা কী?
-- আমি জানি না আপনাকে সেদিন কে কী বলেছে, কিন্তু বিশ্বাস করুন আমি আপনায় টোন করিনি আমিও তখন ওইদিক দিয়ে যাচ্ছিলাম আমি সেদিন এগুলোই বলতে চেয়েছিলাম কিন্তু আপনি না শুনেই চলে গেলেন

সামীর মুখের সরলতা স্পষ্টভাষী স্বভাব দেখে গলে যায় রিয়ার রাগ সত্যিই ক্যাম্পাসে সামীর নামে সে কোন কুৎসা শোনেনি কোনদিন আর আজ তার সরল প্রকৃতি বিশ্বাস করতে বাধ্য করে তাকে
-- সরি তাহলে আমি রিয়া ফার্স্ট ইয়ার, ইকোনমিকসআসলে একটু প্রবলেমে পরে আপনার কাছে এসেছি ভাইয়া আমায় মিনিম্যাক্স থিয়োরি বুঝিয়ে দেবেন প্লিজ?
রিয়ার মুখে ভাইয়া ডাক শুনে হকচকিয়ে যায় সামী কোন রকমে নিজেকে সামলে নিয়ে বললো-

-- এপোলজি এক্সেপ্টেড রিয়া, বসো, বইটা দাও আর আপনি বলার প্রয়োজন নেই



ভুল বোঝাবুঝিতে শুরু হলেও তাদের বন্ধুত্ব খুব তাড়াতাড়ি গভীর হয়ে ওঠে লাইব্রেরীর সেই দিনের পর থেকেই রিয়াকে টিচারদের কাছে কম সামীর সাথে বেশি দেখা যেতে লাগল পড়া বোঝার জন্য সামীর মাঝে অদ্ভূত একটা সরলতা ছিল যেটা রিয়াকে টানত তার দিকে

দুজনে বুঝতেই পারেনি কবে তাদের মনে উষ্ণতা ভরা বন্ধুত্ব থেকে প্রেমের বসন্ত এসে গেছিল এই ভাবেই লুকোচাপা করে কেটে যায় দুবছর সামী ইকোনমিক কনসালটেন্ট এর চাকরি পেয়ে যায় এবার সে ঠিক করে নিজের মনের কথা খুলে বলবে রিয়াকে

আজও তাদের দেখা করার কথা তবে এবার পড়ার জন্য নয়, আজ রিয়ার জন্মদিন সামীর একটু লেট হয়ে গেছিলো সামী পৌঁছে দেখে রিয়া ফোনে কার সাথে যেনো কথা বলছে একটু কাছাকাছি আসতেই রিয়ার বলা কথাটা স্পষ্ট শুনতে পায় রিয়া ফোনের ওইপাশের কাউকে বলা ভালোবাসি শব্দটা সামীর কান দিয়ে সোজা বুকের ভিতর গিয়ে আঘাত করে রিয়াকে কিছু না বলেই চুপচাপ চলে আসে সামী ওখান থেকে

পরে রিয়া অনেকবার ফোন করে সামীকে, মেসেজ করে কিন্তু সামী রিয়ার মুখোমুখি হওয়ার সাহস পায় না সামী রিয়ার দূরত্ব ক্রমশ বাড়তে থাকে

সামীর মা তাকে প্রেশার দিতে থাকে বিয়ের জন্য রিয়ার প্রেমে মন ভাঙার পর সামী আর ভরসা পায়না কাউকে আপন করার তবুও মায়ের কথা ভেবে সে অমত করে না মা খুশিতে মেয়ের পরিবারকে পরের দিনই যাবার কথা দিয়ে দেয়

মেয়েকে দেখে হতবাক হয়ে যায় সামী
-- রিয়া তুমি?
-- কেন তুমি কি অন্য কাউকে ভালোবাসো, বিয়ে করতে চাও? অভিমানের সুরে বলে রিয়া

--  না মানে....
-- কী? হঠাৎ এমন কি হলো যে তুমি কনট্যাক্ট ভেঙে দিলে?
-- সেদিন তুমি ফোনে একজনকে ভালোবাসি বলেছিলে
-- তো কি? সে তো আমার ছোট্ট ভাগনে তুমি এতটা ভুল বুঝলে আমায়? একবার আমায় জিজ্ঞেস করতে! ভাগ্যিস আন্টি আমাদের ব্যাপারে সব জানে

-- মা জানে?
-- হ্যাঁ কিন্তু আমি যদি বাড়ির সবাইকে আমাদের কথা না বলতাম তাহলে তুমি কি সত্যিই অন্য কাউকে....
রিয়ার কথা শেষ করতে না দিয়েই সামী ওকে কাছে টেনে নিয়ে বললো---

-- ভালোবাসি!
-- ভালোবাসলে ভুল বুঝতে না
-- শুধু কি তোমারই বুঝতে ভুল হতে পারে, আমার পারে না?
- সত্যিই কি অদ্ভুত ব্যাপার তাই না বন্ধুত্বও ভুল বুঝে শুরু, ভালোবাসাও
-- হ্যাঁ কিন্তু প্রত্যেকটা ভুলের পর তোমায় আমি আরো কাছে পেয়েছি এমন হলে আমদের ভুল অমর রহে
-‍হ্যাঁ সেই! একবার তুমি ভুল বোঝো একবার আমি তাই না ভাইয়া
-- হবু বরকে ভাইয়া বললে এবার সত্যিই লোকে ভুল বুঝবে
দুজনেই হাসতে থাকে শেষমেষ ভুলে ভুলে তাদের কাছে আসা পরিণতি পায় বিয়েতে

No comments

Powered by Blogger.