জারিফ এ আলমের পদাবলি



জারিফ আলম


অসুখের দিন

নাড়িয়ে যায় অসুখী কিছু কোলাহল
এমন করে পুড়ছে দহনের মৌসুমে
এমন করে ছড়ায় বেদনার ঘ্রাণ
মূলত এখন নীল আবহের অন্তিমকাল
আড়াল করে রাখি নিজের ঈর্ষা আর ঘৃণাটুকু
লজ্জার কলকব্জা নিয়ে ব্যবসা করুক অন্যেরা
শুধু রঙের গোধূলী ভর করুক
আমদের বেদনার গাঢ়তায়
স্থির যতো উপকরণ জারিত করুক
নিষিদ্ধ সুখের যাবতীয় উপায়ে

বেঁধে রেখেছি প্রতিভাহীন স্মৃতির মলাট
শিহরণে ঘেমে উঠুক চিবুক ললাট
তবু 
রৌদ্রে মুছে রৌদ্রে আঁকি 
অসুখের দিন

আমাদের স্বপ্নের মৃতদেহ         

সন্দেহের পর্দায় ভেসে ওঠে খুচরো কথামালা
যাপনের ইচ্ছে নিয়ে ছুটে বেড়াই গাঢ় রঙের
সাংকেতিক অনুভূতি নিয়ে

প্রেমের বিভূতি ছড়িয়ে দাও চতুর্দিকে
সারাদিন নিকোনো উঠোনে বৃষ্টি নামুক
ভিজিয়ে দিক এই বিষণ্নতা ছোঁয়া আকাশ
ভাবনার মৌসুমে ক্যালেন্ডারে জমা হোক
আরো কিছু স্মৃতি। সারা প্রহর 
আলাপে আলাপে কেটে যাক আজ
নিয়তির কাছে খোলা চিঠি লিখি তাই
প্রত্যাশার চিত্রপটে জমা হোক
আমাদের স্বপ্নের মৃতদেহ। 


শঙ্কিত সুর

আতঙ্কিত রোদের অনুভূতি নিয়ে
হেমন্ত এঁকেছে স্বপ্নের কোলাজ
মেঘের মেয়েরা পরাবাস্তব স্বপ্ন নিয়ে
ঢেউ খেলে গেলো সারাদিন
                          
প্রতিদিন  যাপনের সিঁড়ি বেয়ে 
ভেতরে ভেতরে বেজে ওঠে তাই
করুণ বিউগল!


উদযাপন

নিখোঁজ আত্মাকে খুঁজতে গিয়ে
নিজের অস্তিত্বে পড়েছে টান
ব্যক্তিগত এইসব অনুভূতির
দরদাম হয় না মানুষের নিলামে

আমাদের অনেক করে পাওয়া
জীবনের উদযাপন

যমুনার সংসার 

দীঘল কেশের মতো বড় হতে থাকে 
যমুনার দেহ। বড় হতে হতে
আকাশ ছোঁবার বাসনা এখন
যমুনার বুকে

সুখের মর্তুবা শিখে নিয়ে
ঝলসে দিয়েছে আলস্যের রঙ
যৌনঘন সময় এসে যায় তার-
ডিমলাইটের আলোয় হঠাৎ
খেয়ালিপনা তার,
কীসের আবাহন আজ!




No comments

Powered by Blogger.