মাহবুবা করিমের একগুচ্ছ কবিতা


মাহবুবা করিমের একগুচ্ছ কবিতা




আগুয়ান - কবিতা - পদাবলি - মাহবুবা করিম - Agooan - Webamg - Poem - Kobita - mahbuba karim
মাহবুবা করিমের একগুচ্ছ কবিতা





শশীকাব্য


এই জ্বরের জীবনে - তুমি
একটুকরো শীতল জলপট্টি

তোমাকে চাই জীবন যৌবনে
তোমাকেই চাই জান্নাতী জংশনে

যদি বলিভালোবাসি না, জিভ খসে যাবে
যদি বলিতুমিহীনা বাঁচা যায়, সশব্দে ভেঙে পড়বে আকাশ



চোখ শহরের আরেক নাম


তোর চোখ দেখলেই
বুঝি প্রেমে পড়ি বারবার?
বুঝি বিপরীত বাতাসে ভাসাই গা?
বুঝি ঘর সংসারের পৃষ্ঠা উল্টে,
বৈরাগী হই?

তোর চোখ দেখলেই
বুঝি প্রেমে পড়ি বারোমাস?
বুঝি পিঠ পোড়ে, বুক পোড়ে
পল্লব কাপে হিয়ার?
বুঝি বৃষ্টি নামে অলুক্ষণে বিকেলে?
সর্বনাশের গুটি চালে,
দিনভর?

তোর চোখ দেখলেই
অমোঘ পৃথিবী ফাঁদে ফেলে
একটি দোতালা দুপুর

তুমি শৃঙ্খল মুক্ত হও

চলতে গিয়ে যদি দেখো কেউ তোমাকে নাচাচ্ছে
পায়ে ঘুঙুর পরিয়েছে, তুমি তা ছুঁড়ে দাও নর্দমায়;
কারণ    তুমি অগ্নিলাভা
             তুমি উলকি
             তুমি সূর্যের প্রজ্জ্বলিত আলো,
কু-সংস্কারের কালো পর্দা ছিঁড়ে
তোমার উচ্চকণ্ঠে জুড়ে নির্মাণ করতে হবে ইতিহাস
তোমার দু'পায়ের হিল জুতোয়
দলে পিষে দিতে হবে নারী জন্মের দায়
কারণ    তুমি নারী, তুমি দেশলাই
চাইলে জ্বলতে পারো,জ্বালাতে পারো
পুড়িয়ে গলাতে পারো লোহার শেকলও

নারী তুমি সূর্য হয়ে উঠো - কারণ তুমি নারী
ফুল হয়ে ফুটো-কারণ তুমি নারী
পুকুর থেকে দীঘি,দীঘি থেকে সমুদ্র হয়ে উঠো-
                                         কারণ তুমি নারী
পুরাতন জন্মের ঋণ শোধ করবে তুমি -
তুমি নির্ভয়, তুমি সহস্র কোটি নারীর দাবির মিছিল
ঘুরে দাঁড়াও
শোষকের হাত মুচড়ে দাও
লেহনকারী জিভ ছিঁড়ে দাও
থাবা খোল,দশ নখে ছিঁড়ে ফেলো নেকলেস
তুমি নারী! প্রতিবাদের আরেক নাম
তুমি ভেঙে ফেলো
ভেঙে ফেলো পুরুষের গড়া ফাঁদ

নারীরা   নিভৃতে পোষণ করে অসীম সাহস
নারীরা   অন্তরে পোষণ করে নিখাঁদ প্রেমের দূর্গ
তুমি ফেপে উঠো,
ফুলে উঠো,
ফুঁসে উঠো
আরোগ্য হও এই ব্যধি থেকে
তুমি নারী    তোমাকে জাগতে হবে
তুমি নারী    তোমাকে সাঁতারু হতে হবে
তুমি নারী     কথার করাতে কাটতে হবে সুড়ঙ্গ
তুমি নারী     চোখের লালে বিস্ফোরিত হবে জনপদ
কারণ -তুমি নারী- তুমি উর্ধ্বে-তুমি নত নও
তুমি আগত পৃথিবীর মশাল জ্বেলে দু হাত তুলে দাঁড়াও,
তোমার পিছু নিবে মেটেসাপ
ওরা মোচড়াবে
ফুসে উঠবে
রুখে উঠবে
কামড়াবে
প্রয়োজনে কষে লাথি মারবে ওদের অণ্ডকষে

তোমাকে
ঝাক বেঁধে চলতে হবে
যারাই নখ বসাতে আসুক
তাদের আঙুল কেটে দিতে হবে তোমাকেই
কারণ তুমি নারী, তুমি অগ্নিগিরি
তোমার গর্ভে জন্মে নিবে একশত আট কোটি সৈনিক
তোমার বুকে থাকবে মানুষের মানচিত্র
তোমার আঁচলে থাকবে দংশিল সাপ
ওরা কিলবিল করবে আর দাঁত বসাবে
পাষণ্ড পৃথিবীর নরকীয় শরীরে

হে অগ্নিনারীপায়ের শেকল খোল
হে দূর্গা দূর্গেশিনী হাত থেকে খুলে ফেলো বন্ধন
একবিংশ শতাব্দীতে কোন নারী আর নতমুখী নয়

 তুমি নারী,
প্রয়োজনে তুমি কোমল হবে
প্রয়োজনে আরও কঠিন, পাথরের পাঁচিল হও

No comments

Powered by Blogger.