জমাতুল ইসলাম পরাগের ছড়াগুচ্ছ


জমাতুল ইসলাম পরাগের ছড়াগুচ্ছ




আগুয়ান - ছড়া - জমাতুল ইসলাম পরাগ - ওয়েবম্যাগ - অনলাইন ম্যাগাজিন- Agooan - Web magazine - jamatul islam porag - -online magazine
জমাতুল ইসলাম পরাগের ছড়াগুচ্ছ



আজগর আলি খন্দকার

এই কী ছেলে! বড্ড গাড়ল, পানসে হেসে আন্টিটা
বলে, দেখো তোমার চেয়ে কত্ত ভালো বান্টিটা!
পড়াশুনায় খুব সিরিয়াস, চাকরিটা নেয় জুটিয়ে
তুমি কি না মোষের মতো খেয়ে যাচ্ছো মুটিয়ে
চাকরি নিয়ে ভাবনা তোমার দেখি না তো মোটেও
তবু দেখি প্রেমিকাসব ভাগ্যে তোমার জোটেও!
কেমন ঘরের কোন সে মেয়ে, বুঝে না তার ভালোটাও!
তোমার সঙ্গে জড়িয়ে গিয়ে নিভিয়ে দিচ্ছে আলোটাও
তোমার ভাগ্যে জুটবে যে বউ, ভবিতব্য অন্ধকার
এই না হলে নামটি তোমার আজগর আলি খন্দকার?

আন্টি তো জানে না খবর, তাহার মেয়ে শাম্মিটা
প্রতি রাতেই ভালোবেসে কাকে ছোঁড়ে হাম্মিটা!
বছর চারেক ধরেই আমার চলছে পীরিত তার সাথে
প্রতি বিকেল কাটে আমার হাতটি রেখে তার হাতে
তাই তো বলি, বলে কী রে, পাশের বাড়ির আন্টিটা!
তার মেয়েকে পটিয়েছি আমিই কিন্তু বান্টিটা?
সারাজীবন বই- পড়ে, করে সবই মুখস্থ
তাই পারেনি করতে কোনো সুন্দরীকে বুকস্থ

সবই শুনে আন্টির মুখ জুড়ে নামবে অন্ধকার
সাধে বলি নামটি আমার আজগর আলি খন্দকার?



দোয়েল

সকাল হলেই নেচে নেচে
একটা পাখি এসে
জানলা দিয়ে উঁকি মেরে
এখটুখানি কেশে
শুরু করে কণ্ঠে তাহার
মিষ্টি মধুর গান
কোত্থেকে এক হাওয়া এসে
তোলে সমতান!
এইভাবে সকালবেলায়
ভাঙে আমার ঘুম
সুরেলা সেই গানের নেশায়
ভুলে গিয়ে উম
বেরিয়ে পড়ি পাখির খোঁজে
জানতে কী তার নাম
দাদুর কাছে গেলেই বলে
ব্যস্ত হোস না, থাম
দেখতে কেমন সেই পাখিটা
রংটা আগে বল
কেমন করে নাচে পাখি
কেমন চলাচল?
গায়ে যদি সাদা-কালো
রঙের থাকে মিল
জাতীয় পাখি দোয়েল হবে
হবে না তা চিল!

সেদিন থেকে দোয়েল পাখি
হলো সকাল সঙ্গী
এখন আমি বুঝতে পারি
তাহার সকল ভঙ্গি
বুঝতে পারি তার কী ভাষা
কিংবা গানের সুর
জানতে পারি তার বাসাটি
নয়কো বেশি দূর!
একদিন তাই দোয়েলটাকে
বলি, শোনো ভাই
কেমন তোমার ছোট্ট বাসা
দেখতে ওটা চাই।
হেসে দোয়েল বলে, ভাই
দেখতে আমার নীড়
খুব হইয়ো না উতলা আর
অস্থির অধীর
আমার বাসা খুবই ছোট
খড় তুলোর ঘর
মিলেমিশে থাকি 'জন
কেউ কারো নয় পর








No comments

Powered by Blogger.