তোমাকে আজ কোথাও যেতে দেবো না: কাজী বর্ণাঢ্য


তোমাকে আজ কোথাও যেতে দেবো না

কাজী বর্ণাঢ্য

কাজী বর্ণাঢ্য


তোমার হাস্যোজ্বল চোখে কেনো কান্নার চিহ্ন!
প্রাণবন্ত চঞ্চলতা কেনো থমকে গেলো হঠাৎ!
নিরব প্রেমময় নিঃশ্বাসে কেনো তপ্ত বিরহের স্রোত!
তোমাকে আজ কোথাও যেতে দেবো না
বুকে জড়িয়ে কাটিয়ে দেবো অনন্তকাল

নিজেকে একা কেনো ভাবছো!
আমি তো আছি
যতদূরেই থাকি না কেনো
ছায়া হয়ে স্নেহ ঢালবো নিবির যতনে

আমি জানি, পৃথিবীতে নেমে এসেছে করোনা রাক্ষস
কোনো সামাজিকতা ছাড়াই বিদায় নিচ্ছে
লাখ লাখ প্রাণ
তবুও-
তবুও যেতে দেবো না তোমায়
লড়াই করবো জ্ঞান-বিজ্ঞানের যাবতীয় অস্ত্র
আর পবিত্র ভালোবাসার শক্তি দিয়ে

টোলপরা গালে হেসে উঠো সোনা
আমরা পাহাড়ে যাবো মুছে দেবো পাহাড়ির দুঃখঘাম
সৈকতে যাবো
তুমি হাসবে বাতাসে উড়িয়ে চুল
তোমার হাসির কাছে হেরে যাবে সমুদ্রের ঢেউ
হাওরে যাবো তুমি উড়বে শান্ত আদিগন্ত বকের ঝাঁকে
যাবো অচেনা কোনো গায়ের পথে
মিশে যাবো সবুজে... শৈশবে...

আমি জানি করোনা কেবল মৃত্যুই উপহার দেয়নি
ভেঙে দিয়েছে অগণিত মন
মানুষকে উপহার দিয়েছে ক্ষুধা
মুছে দিয়েছে স্বপ্নের যত ছবি
ঝড়ের কবলে পড়া বৃক্ষের মতো
মানুষ ভেঙে যাচ্ছে মাঝখান দিয়ে
এমন ভয়ানক রাক্ষস পৃথিবীতে আর আসেনি

রাক্ষস মানুষ থেকে মানুষকে সরিয়ে দিয়েছে দূরে
তোমাকে দূরে যেতে দেবো না
আমার বুকের পাটাতনে মাথা রেখে
তুমি আমৃত্যু্ হাসবে
প্রাণ খুলে ভালোবাসবো তুমিও বাসবে
তোমাকে আজ কোথাও যেতে দেবো না


No comments

Powered by Blogger.